π এর সাথে আমরা সবাই কমবেশী পরিচিত। যে কোনো বৃত্তের পরিধির দৈর্ঘ্য এবং ব্যসের ধৈর্ঘ্যের অনুপাত সর্বদা নির্দিষ্ট। এই নির্দিষ্ট অনুপাতটি π নামে পরিচিত। এর মান ৩.১৪১৫৯২৬৬৩……।

π এর মানের সাথে মিলিয়ে প্রত্যেক বছর ৩য় মাসের ১৪ তারিখটিকে π দিবস, দুপুর ১টায় π ঘন্টা, ১ বেজে ৫৯ মিনিটে পাই মিনিট এবং ১ বেজে ৫৯ মিনিট ২৬ সেকেন্ডে π সেকেন্ড পালন করা হয়। π একটি অমূলদ সংখ্যা অর্থাৎ এই সংখ্যাটিকে দুটি পূর্ণ সংখ্যার অনুপাতে প্রকাশ করা যায় না। এই কারনেই π এর মান সম্পুর্ণ বিক্ষিপ্ত। অর্থ্যাৎ দশমিকের পর এর মানটিতে কোন অংকের পর কোন অংক আসবে সেটা কোন প্যাটার্ন অনুযায়ী হিসেব করা যায় না। দশমিকের পরে মোটামুটি ৪০ঘর পর্যন্ত π এর মান জানা থাকলে বিশ্বব্রাহ্মান্ডের যেকোনো ক্ষুদাতিক্ষুদ্র বস্তুর ব্যস সঠিকভাবে হিসেব করে ফেলা যায়, কিন্তু গণিতবিদগণ প্রতি নিয়ত এর মান যথার্থতার কাছাকাছি নির্ণয় করে যাচ্ছেন। এই পর্যন্ত π এর মান ৫ ট্রিলিয়ন ঘর পর্যন্ত যথার্থভাবে নির্ণয় করা হয়ছে এবং এই সংখ্যাটি বেড়েই চলেছে।

এই সংখ্যাটিকে গ্রীক περίμετρος (perimeter= পরিধি) এর আদ্যক্ষর π দ্বারা সুচিত করেন উইলিয়াম জোনস ১৭০৬ সালে। তারও পূর্বে একে কখনো আর্কিমিডিস নাম্বার কিংবা কখনো লুডল্‌ফ ধ্রূবক নামে অবিহিত করা হয়। আর্কিমিডিস এবং লুডল্‌ফ উভয়েই নিজ নিজ সময়ে π এর মান নির্নয়ের সবচেয়ে গ্রহণযোগ্য পদ্ধতি উদ্ভাবন করে গেছেন।

সবশেষে সবচেয়ে চমৎকার তথ্যটি:

আজ আইনস্টাইনের জন্মদিন।

লিখেছেন bengalensis

পোস্টডক্টরাল গবেষক: Green Nanomaterials Research Center Kyungpook National University Republic of Korea.

bengalensis বিজ্ঞান ব্লগে সর্বমোট 70 টি পোস্ট করেছেন।

লেখকের সবগুলো পোস্ট দেখুন

মন্তব্যসমূহ

  1. আরাফাত Reply

    ইমতিয়াজ ভাই, অসাধারণ পোস্ট। আপনাকে হাস্নাহেনার শুভেচ্ছা।এতো ছোট, কিন্তু এতো মনোহর …

    • bengalensis Reply

      তোমাকে duckweed ফুলের শুভেচ্ছা।

আপনার মতামত