দিতার ঘড়ি

প্রায় ২০০ বছর আগে মালিকা নামে এক বিজ্ঞানী এক সমতল ভূমির পার্শ্ববর্তী তুরা পাহাড় ও পাহাড়ের নানা উষ্ণ প্রস্রবণ, লুকানো আগ্নেয়গিরির নকশাসংবলিত বই তুরার পাহাড়ের নকশা রচনা করেন। আর ২০০ বছর পর সেই সমতল ভূমিতে শুরু হয় এক যুদ্ধ। সমতলের কিছু বিজ্ঞানী তাঁদের দেশের অনেক দারিদ্র্যের মধ্যেও সময় যে সামনে অগ্রসরমাণ এই সত্যে আস্থা রেখেছিলেন। আর তাই তাঁরা ঘড়ি নির্মাণের প্রকৌশল আয়ত্ত করতে উদ্বুদ্ধ হয়েছিলেন। ঘণ্টা, মিনিট আর সেকেন্ডের কাঁটার সূক্ষ্ম কারুকাজ থাকত সমতল ভূমির ঘড়ি নির্মাতা বিজ্ঞানী ‘যান্ত্রিক’দের বানানো সেসব ঘড়িতে। অসিতোপল ছিলেন এমন এক দক্ষ ঘড়ি নির্মাতা আর সময়ের প্রবহমানতাবিষয়ক সমতল ভূমির তাত্ত্বিক বিজ্ঞানী ছিলেন মৈনাক। সমতল ভূমি থেকে দূরের এক এলাকার ‘চিতা’ নাম্নী সামরিক বাহিনী সময়বিষয়ক জ্ঞানচর্চা ঘৃণা করত বলেই তারা ঘড়িকেও ঘৃণা করত। লেখক স্পষ্ট করে উল্লেখ না করলেও বোঝা যায় যে চিতারা মনে করত ঈশ্বর বা সৃষ্টিকর্তাই আমাদের তৈরি করেছেন। কাজেই অতীতে কী হয়েছিল, বর্তমানে কী হচ্ছে আর ভবিষ্যতে কী হবে তা নিয়ে ভাবনাচিন্তা করা এবং সেই ভাবনাকে কাঠামোগত রূপ দেওয়ার লক্ষ্যে ঘড়ি নির্মাণ মূলত ঈশ্বরদ্রোহ। এই ঈশ্বরদ্রোহী সমতলের মানুষদের শাস্তি দিতে চিতারা এক প্রবল অভিযান চালায় সমতল ভূমিতে। চিতাদের সামরিক বাহিনীর অন্যতম ক্যাপ্টেন কর্নিক গ্রেপ্তার করেন সময়বিষয়ক তাত্ত্বিক বিজ্ঞানী মৈনাক ও দক্ষ ঘড়ি নির্মাতা অসিতোপলকে।  (অদিতি ফাল্গুনী-র বই পরিচিতি থেকে)

ধরণ:  বৈজ্ঞানিক কল্পকাহিনী।

লেখক: দীপেন ভট্টাচার্য

বই-পর্যালোচনা
১) দিতার ঘড়ি
বিহঙ্গ, বিজ্ঞান ব্লগে প্রকাশিত বই পরিচিতি
২) সময়-ইতিহাস-প্রেম-অধিচেতনার আখ্যান  অদিতি ফাল্গুনী, প্রথম আলো শিল্প ও সাহিত্য বিভাগে প্রকাশিত

প্রথমা, জুলাই, ২০১২
মূল্য: ২৮০ টাকা
রকমারী.কম 

আপনার মতামত

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.