আপনি কি স্টার ওয়ার মুভি এর “রিটার্ন ওফ জেডি” সিকুয়াল টি দেখেছেন?যদি দেখে থাকেন তবে নিশ্চই মনে করতে পারছেন কিছু লম্বাটে পোকার মত প্রাণী যারা মানুষদের আক্রমণ করত।

ধরুন আপনি সাগরের মেঝে তে হেঁটে যাচ্ছেন, ঠিক এমন সময় কিছু একটা এসে আপনার পা ধরে ফেললো আর আপনাকে টেনে নিয়ে গেলো ভেতরে। ভাবতেই আঁতকে উঠছেন না? প্রশান্ত মহসাগরের ট্রপিকাল অঞ্চলের উষ্ণ পানিতে এমন এক ধরনের ওয়ার্ম পাওয়া যায় যাদের নাম ববিট ওয়ার্ম। প্রায় ৩ মিটার পর্যন্ত লম্বা হতে পারা এ প্রাণীরা বিখ্যাত তাদের অতর্কিত আক্রমণের জন্যে। মারাত্মক ধারালো চোয়াল এর অধিকারী এই প্রাণীরা সাধারণত নিশাচর হয়। এদের চোয়াল এতই ধারালো যে এরা মাঝে মাঝে শিকার কে দুই টুকরা করে ফেলে। ওয়ার্ম বলতে সাধারনত বুঝায় ক্ষুদ্রাকৃতির অমেরুদণ্ডী প্রাণী। ববিট ওয়ার্ম মাংসাশী, তবে খাদ্যাভাব দেখা দিলে এরা সামুদ্রিক গাছপালা খেতে থাকে। এদের গায়ে বিভিন্ন রং দেখা যায়।গাঢ় বাদামী থেকে সোনালী লাল শোভা পায় এদের শরীরে। সাধারনত এদের মাথার অংশে ৫ টি অ্যান্টেনা থাকে, যার সাহায্যে এরা শিকারের অবস্থান নির্নয় করতে পারে। এদের শিকারের ধরন কিছুটা ভিন্ন। এরা নিজেদের বিশাল লম্বা আকৃতির শরীর বালির মধ্যে লুকিয়ে রাখে মাথার অংশ বাদে।যখন কোন মাছ বা অন্য কোন প্রাণী এদের উপর দিয়ে যায়, তখন এরা তাদের ধারাল চোয়াল এর সাহায্যে শিকারকে ধরে ফেলে ও বালির ভিতরে টেনে নিয়ে যায়। যুক্তরাজ্যের “নিওকাস ব্লু রিফ একোয়ারিয়াম” এ একটি মজার ঘটনা ঘটেছিল। সেখানের একটি রিফ ডিসপ্লে ট্যাংক একটি ববিট ওয়ার্ম ঢুকে গিয়েছিল। একোয়ারিয়াম এর স্টাফরা লক্ষ্য করলেন, কোন এক অদ্ভুত কারনে সেখানের মাছ ও কোরাল গুলো উধাও হলে যাচ্ছে। তারা বেশ কয়েক টি আহত মাছ ও খুঁজে পেল একোয়ারিয়াম এ। পরবর্তীতে তারা এই অজ্ঞাত প্রাণীটিকে ধরার জন্যে ফাঁদ পেতেছিল এবং ববিট ওয়ার্ম ধরা পড়েছিল। আক্রমনাত্মক স্বভাব, ক্ষিপ্রতা এবং অবিশ্বাস্য রকমের গতির কারনে এরা হয়ে উঠেছে সাগরের মেঝেতে বসবাসরত প্রাণীদের আতঙ্ক।

ফেসবুকে আপনার মতামত জানান

আপনার মতামত