বিজ্ঞানীর খুঁজে পেলেন মহাবিশ্বের সব থেকে বড় গ্যালাক্সি

এই গ্যালাক্সি সাধারণ আলোতে দৃশ্যমান নয়। এজন্য রেডিও টেলিস্কোপ দরকার পড়ে।
বিভিন্ন গ্যালাক্সির আকারের তুলনা। সূত্র BigThink

জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা ১৬ই ফেব্রুয়ারি, ২০২২ এ ঘোষণা দিয়েছেন তারা এখন পর্যন্ত দেখা সবচেয়ে বড় গ্যালাক্সি খুঁজে পেয়েছেন।

গ্যালাক্সিটির নাম অ্যালসিওনিয়াস (Alcyoneus)। গ্রীক পুরাণে আকাশের দেবতা ওরানোসের পুত্রের নামানুসারে গ্যালাক্সির  নামকরণ করা হয়েছে। গ্যালাক্সিটি পৃথিবী থেকে প্রায় ৩ বিলিয়ন আলোকবর্ষ দূরে। এটি একটি বিশাল রেডিও গ্যালাক্সি যার অনুমানিক  দৈর্ঘ্য ৫.৪ মেগাপারসেক (১৬.৪৪ মিলিয়ন আলোকবর্ষ), অর্থাৎ আমাদের ছায়াপথের চেয়ে ১০০ গুণ বড়।

অ্যালসিওনিয়াসের রেডিও গ্যালাক্সির দুইটি কমলা রংয়ের রেডিও লোব দেখা যাচ্ছে।

এটি আমাদের আকাশে পূর্ণিমার চাঁদের আকারের একটি এলাকা দখল করে আছে। এটি একটি রেডিও গ্যালাক্সি – তার মানে দৃশ্যমান আলোতে একে দেখা যায় না কিন্তু রেডিও তরঙ্গে  দৃশ্যমান।

এই গ্যালাক্সিতে এমন অনেক নক্ষত্র রয়েছে যাদের ওজন আমাদের সূর্যের থেকে কোটি কোটি গুণ বেশি।এর ভিতরে যে ব্ল্যাক হোল আছে তার ভর ৪০০ মিলিয়ন সৌর ভরের সমান।

লেইডেন ইউনিভার্সিটির মার্টিন ওয়েই গবেষণা দলের নেতৃত্ব দেন।তাদের কাজ ছিল লো ফ্রিকোয়েন্সি অ্যারে (LOFAR) টেলিস্কোপ থেকে প্রাপ্ত  বিদ্যমান চিত্রগুলিকে পুনরায় প্রক্রিয়া করে দৈত্যটিকে অন্ধকার থেকে খুজে বের করা। 

লোফার রেডিও টেলিস্কোপ।

অ্যালসিওনিয়াসের জেট

জ্যোতির্বিজ্ঞানীদের মতে রেডিও গ্যালাক্সির কেন্দ্রে সুপারম্যাসিভ ব্ল্যাক হোল থাকে। এই ব্ল্যাক হোলের ভিতরে পদার্থ পতিত হলে এটি গ্যালাক্সির কেন্দ্র থেকে বিপরীত দিকে দুটি রেডিও জেটের আকারে শক্তি প্রকাশ করে, এটি সক্রিয় গ্যালাকটিক নিউক্লিয়াস নামেও পরিচিত। গবেষকদের মতে, অ্যালসিওনাসের এই চার্জযুক্ত কণাকে (সুপার চার্জড পার্টিকেল) সিঙ্ক্রোট্রন বলা হয়, যা গ্যালাক্সির ভিতরে রেডিও তরঙ্গের যোগাযোগ তৈরি করে। আসলে এগুলো হল রেডিও জেট, যেগুলো প্রায় আলোর গতিতে গ্যালাক্সি জুড়ে একপাশ থেকে অন্যপাশে ভ্রমণ করে।

এই জেট গ্যালাক্সি থেকে শিশু নক্ষত্রের গঠনের উপাদানগুলিকে ছিনিয়ে নিয়ে এই জেটের মাধ্যমে মহাকাশে উৎক্ষিপ্ত করে। এই প্রক্রিয়ায়, নাক্ষত্রিক উপাদানগুলি এত বেশি উত্তপ্ত হয় যে এটি প্লাজমাতে দ্রবীভূত হয় এবং রেডিও আলোতে জ্বলতে থাকে, যা LOFAR টেলিস্কোপ সনাক্ত করতে সক্ষম।ধারণা করা হয় নির্গত দুটি বিশাল জেট স্ট্রিম থেকে অ্যালসিওনিয়াস তার এই  বিশাল আকার পেয়েছে। এখান থেকে  নির্গত জেট স্ট্রিমগুলিও অনেক বড়, কমপক্ষে ১৬.৪৪ মিলিয়ন আলোকবর্ষে জুড়ে প্রসারিত। 

কসমিক জালিকা অনুসন্ধান

বিজ্ঞানীরা মনে করেন যে অ্যালসিওনিয়াসের প্লাজমা প্লুম বা জেটগুলি মহাজাগতিক ওয়েব  সম্পর্কে আরো বিষদ জানতে সাহায্য করতে  পারে।

কসমিক জালিকা

মহাজাগতিক ওয়েব হল সমসাময়িক, প্রাপ্তবয়স্ক মহাবিশ্বের আরেকটি নাম, যা দেখতে থ্রেড এবং নোডের একটি নেটওয়ার্কের মতো যাকে জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা যথাক্রমে ফিলামেন্ট এবং ক্লাস্টার বলে। বহু বছর ধরে, বিজ্ঞানীরা প্রস্তাব করেছেন যে রেডিও গ্যালাক্সির প্লুমগুলির আকার এবং চাপগুলি ফিলামেন্ট বৈশিষ্ট্যগুলির সাথে সম্পর্কিত হতে পারে।

তবে তারা আগে কখনও এমন একটি উদাহরণ খুঁজে পায়নি যেখানে সেই সংযোগটি অ্যালসিওনিয়াসের মতো।

ফিলামেন্ট।

জেটগুলি এতই ক্ষীণ যে জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা আন্তঃগ্যাল্যাক্টিক মাধ্যমে চলাফেরা করার সময় তাদের মধ্যে সূক্ষ্ম পরিবর্তন দেখতে পান। জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা আশা করেন যে এই সূক্ষ্ম আন্দোলন তাদের মহাজাগতিক ওয়েবের শূন্যতা বুঝতে সাহায্য করবে।

শুধুমাত্র  J1420-0545 নামের একটি গ্যালাক্সি আছে, যা অ্যালসিওনিয়াসে এর থেকে সামান্য ছোট।

তথ্যসুত্র

Astronomers discover massive radio galaxy 100 times larger than the Milky Way | Space

Largest galaxy ever discovered baffles scientists | Live Science

Space: The largest radio galaxy ever found, ‘Alcionius’ is 300 million light years away from the solar system – Hindustan News Hub

ক্যুইজ!

বিজ্ঞান সম্পর্কে আপনি কতোটা জানেন?

নিজেকে বিজ্ঞানপ্রেমী মনে করেন? তাহলে চলুন পরীক্ষা করে দেখা যাক! মাত্র ৫টি প্রশ্নের এই কুইজ দিয়ে মেপে দেখি আপনি কতোটা বিজ্ঞান ভক্ত?