জেমস ওয়েব টেলিস্কোপের তোলা  প্রথম চারটি অত্যাশ্চর্য ছবি

গত ১১ জুলাই সোমবার ওয়েব টেলিস্কোপের তোলা একটি ছবি প্রকাশ করা হয় ৪.৬ বিলিয়ন বছর আগের দূরবর্তী ছায়াপথ পরিষ্কার ভাবে দেখা গেছে। 

মহাকাশ সংস্থা নাসা জেমস ওয়েবের তোলা দূরবর্তী মহাকাশের আরও চারটি অত্যাশ্চর্য  ছবি প্রকাশ করছে। প্রকাশিত নতুন ছবিগুলির মধ্যে আছে একটি “নাক্ষত্রিক নার্সারি”, একটি মৃত নক্ষত্রের চারপাশে গ্যাসের গোলক এবং গ্যালাক্সির একটি গ্রুপের মধ্যে একটি “মহাজাগতিক নৃত্যর দৃশ্য। একটি ছবিতে দেখা যায় দূরবর্তী গ্যাসীয় একটি  গ্রহের বায়ুমণ্ডলে জলীয় বাষ্প দেখা গেছে। 

WASP-96 b হলো সৌরজগতের বাইরের একটি বিশাল গ্রহ যা মূলত গ্যাস দ্বারা গঠিত। যা ২০১৪ সালে আবিষ্কৃত হয়েছিল। WASP-96 b গ্রহটি পৃথিবী থেকে প্রায় ১,১৫০ আলোকবর্ষ দূরে, এর ভর বৃহস্পতির প্রায় অর্ধেক এবং মাত্র ৩.৪ দিনে এটি তার নক্ষত্রকে প্রদক্ষিন করে। 

এই পর্যবেক্ষণটি আলোর ইনফ্রারেড তরঙ্গদৈর্ঘ্য দিয়ে কর সম্ভব হয়েছিলো। যা বিজ্ঞানীদের এর আগে করতে সমর্থ ছিলেন না। এই পর্যবেক্ষণে আলোর সুনির্দিষ্ট রঙের উজ্জ্বলতার ক্ষুদ্র-হ্রাসের উপর ভিত্তি করে নির্দিষ্ট গ্যাসের অণুর উপস্থিতি প্রকাশ করে। এটি এখন পর্যন্ত এই ধরণের সবচেয়ে বিস্তারিত ছবি যা শত শত আলোকবর্ষ দূরের গ্রহে বায়ুমণ্ডল বিশ্লেষণ করার জন্য ওয়েবের অভূতপূর্ব ক্ষমতা প্রদর্শন করে। 

অন্য একটি ছবিতে মিল্কিওয়ে গ্যালাক্সিতে অবস্থিত ক্যারিনা নীহারিকা সম্পর্কে নতুন তথ্য প্রকাশ করেছে। ক্যারিনা নীহারিকা  হল রাতের আকাশে দেখা যাওয়া সবচেয়ে বড় এবং উজ্জ্বল নীহারিকা। 

এটি দক্ষিন ক্যারিনা নক্ষত্রমন্ডলে প্রায় ৭,৬০০ আলোকবর্ষ দূরে অবস্থিত। ক্যারিনা নীহারিকা  অনেক বৃহদাকার নক্ষত্রের আবাসস্থল, সূর্যের চেয়ে কয়েকগুণ বড়।  ওয়েবের এই নতুন ছবিতে এমন অনেক নক্ষত্রকে প্রকাশ করে যা আগে দৃশ্যমান ছিল না।

ক্যারিনা নীহারিকা।

 ছবিতে নীহারিকাটির ঠিক প্রান্তে, মেঘের মধ্যে শত শত নক্ষত্র দেখা যায় যা আগে কখনো দেখা যায়নি। নীহারিকাটির মধ্যে প্রচুর পরিমাণে ধুলো এবং গ্যাস বিদ্যমান থাকার কারণে নক্ষত্রগুলি মানুষের চোখে দৃশ্যমান ছিল না। 

মহাজাগতিক চুড়া হিসাবে উল্লেখ করা এলাকাটি আসলে প্রায় ৭,৬০০ আলোকবর্ষ দূরে NGC 3324 এর মধ্যে একটি বিশাল, গ্যাসীয় গহ্বরের প্রান্ত। ছবিতে দেখানো এলাকার উপরে বুদবুদের কেন্দ্রে অবস্থিত অত্যন্ত বৃহদায়তন, উষ্ণ, তরুণ নক্ষত্র থেকে তীব্র অতিবেগুনি বিকিরণ এবং নাক্ষত্রিক বায়ু দ্বারা নীহারিকা থেকে এই গুহা এলাকাটি সৃষ্টি হয়েছে। 

এই নক্ষত্রগুলি থেকে উচ্চ-শক্তির বিকিরণ নীহারিকাটির প্রাচীরকে ধীরে ধীরে ক্ষয় করে এই রকম অসমতল প্রান্ত তৈরি করে। যা দেখতে অনেকটা খরখরে পাহাড়ের মতো দেখায় তা আসলে ক্যারিনা নীহারিকার কাছাকাছি, তরুণ, নক্ষত্র-গঠনের অঞ্চল NGC 3324-এর প্রান্ত। 

ওয়েব স্পেস টেলিস্কোপে নিয়ার-ইনফ্রারেড ক্যামেরা (NIRCam) দ্বারা ইনফ্রারেড আলোতে ক্যাপচার করা। এই চিত্রটি নক্ষত্রের জন্মের পূর্বে অস্পষ্ট এলাকাগুলি প্রকাশ করে। নাসা এই ফটোতে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিবরণ নির্দেশ করেছে।  

প্রথমত, এটিকে “বাষ্প” হিসাবে বর্ণনা করা হয়েছে কিন্তু আসলে বাস্প নয়। প্রকৃতপক্ষে তীব্র, অতিবেগুনি বিকিরণের কারণে নীহারিকা থেকে গরম, আয়নিত গ্যাস এবং ধুলো প্রবাহিত হচ্ছে। 

বিশাল এবং নাটকীয় স্তম্ভগুলি যেগুলি গ্যাসের জ্বলন্ত প্রাচীরের উপরে উঠছে, তা তরুণ এবং সদ্য গঠিত নক্ষত্রের অতিবেগুনী বিকিরণকে প্রতিরোধ করে। বুদবুদ এবং গহ্বরগুলি নবজাত নক্ষত্রের তীব্র বিকিরণ এবং নাক্ষত্রিক বাতাস দ্বারা স্ফিত হচ্ছে।

স্টিফেনস কুইন্টেট।

অন্য একটি ছবিতে দেখা যায় ২৯০ মিলিয়ন আলোকবর্ষ দূরে অবস্থিত স্টিফেনস কুইন্টেট নামের পাঁচটি গ্যালাক্সির একটি গ্রুপ। যা হিকসন কমপ্যাক্ট গ্রুপ ৯২ নামেও পরিচিত। স্পেস এজেন্সির মতে, এই বিশাল চিত্রটি এখন পর্যন্ত ওয়েবের সবচেয়ে বড় ছবি, যা চাঁদের ব্যাসের প্রায় এক-পঞ্চমাংশ জুড়ে রয়েছে।  এটিতে ১৫০ মিলিয়নেরও বেশি পিক্সেল রয়েছে এবং এটি প্রায়  ১,০০০টি আলাদা ইমেজ ফাইল থেকে তৈরি করা হয়েছে৷ 

চিত্রটি ক্লাস্টার সম্পর্কে নতুন তথ্য প্রদান করে। যার মধ্যে লক্ষ লক্ষ বছর আগে লক্ষ লক্ষ নক্ষত্রের জন্ম হয়েছিলো। মহাকর্ষীয় মিথস্ক্রিয়ার কারণে বেশ কয়েকটি ছায়াপথ থেকে ধুলো এবং গ্যাসের লেজ গ্যালাক্সিগুলি থেকে বিভিন্ন দিকে ছড়িয়ে পড়েছে। দেখে মনে হয় গ্যালাক্সিগুলি মহাজাগতিক নৃত্য করছে। নাসা বলেছে এর মধ্যে “সবচেয়ে আশ্চর্যজনক” চিত্র গ্যালাক্সী গুচ্ছের  মাঝখানে NGC 7318B নামের একটি গ্যালাক্সী ভেঙে পড়া এবং বিশাল শক ওয়েভের ছবি ধারন করা।

স্টিফেনস কুইন্টেট।

সাউদার্ন রিং নীহারিকা, যাকে “এইট-বার্স্ট” নীহারিকাও বলা হয়, মূলত একটি গ্রহ নীহারিকা নামে পরিচিত। এটি একটি মৃত নক্ষত্রকে ঘিরে থাকা গ্যাসের একটি প্রসারিত মেঘ।  এটির ব্যাস প্রায় অর্ধআলোকবর্ষ এবং এটি পৃথিবী থেকে প্রায় ২,০০০ আলোকবর্ষ দূরে অবস্থিত। ওয়েব mid-infrared and near-infrared উভয় মাধ্যমে সাউদার্ন রিং নীহারিকার দুটি পৃথক দৃশ্য ধারণ করেছে। 

সাউর্দান রিং।

NGC 3132-এর কেন্দ্রে উজ্জ্বল নক্ষত্রটি, যখন ওয়েব টেলিস্কোপের near-infrared আলোতে দেখা হয় তখন একটি দ্বিতীয় নক্ষত্র দেখা যায়। এর উজ্জ্বল নক্ষত্রের বিচ্ছুরণ স্পাইকগুলির একটি বরাবর নীচের বাম দিকে দৃশ্যমান। 

এটি হাজার হাজার বছর ধরে গ্যাস এবং ধূলিকণার অন্তত আটটি স্তর নির্গত করেছে। আর এই কাজে সহায়তা করে চলছে নীহারিকার কেন্দ্রের দৃশ্যমান  নক্ষত্রটি। এই নক্ষত্রটি হাজার হাজার বছর ধরে গ্যাস এবং ধূলিকণার রিংগুলিকে সমস্ত দিকে পাঠাচ্ছে। 

সাউর্দান রিং।

নক্ষত্রটি গ্যাসের ভিতরে আলোড়ন করতে সাহায্য করেছে। এতে করে এই গ্রহ নীহারিকাটির অত্যন্ত জটিল বলয়ের আকৃতি পরিবর্তন করেছে।  নক্ষত্রের জোড়া একটি আঁটসাঁট কক্ষপথে আবদ্ধ থাকে। যা একে অপরকে প্রদক্ষিণ করার সময় বিভিন্ন দিক থেকে নির্গত উপাদান নিক্ষিপ্ত করে। যার ফলে এই খাজকাটা বলয়গুলোর সৃষ্টি হয়।

এটি শুধুমাত্র একটি গ্রহ নীহারিকার একটি চটকদার ছবি নয় এটি আমাদেরকে এর পিছনের মহাকাশের বিশাল দূরত্বের বস্তুগুলিও দেখায়। গ্রহ নীহারিকাটির স্বচ্ছ লাল অংশ এবং এর বাইরের সমস্ত অঞ্চলগুলি দূরবর্তী ছায়াপথে পূর্ণ।  উপরের বাম দিকে উজ্জ্বল কোণীয় রেখাটি নক্ষত্রের আলো নয়। এটি একটি দূরবর্তী ছায়াপথ যা কিনারায় দেখা যায়।

নাসার ওয়েব টেলিস্কোপ প্রথমবারের মতো সাউদার্ন রিং নেবুলার কেন্দ্রে লাল রঙে বাম দিকে দেখানো দ্বিতীয় নক্ষত্রের চারপাশে ধুলোর আবরণ প্রকাশ করেছে। এটি একটি উষ্ণ, ঘন সাদা বামন নক্ষত্র।  

এটি একটি সাদা বামনে রূপান্তরিত হওয়ার সাথে সাথে, নক্ষত্রটি থেকে পর্যায়ক্রমে ভর নির্গত হয়। তাহলে লাল নক্ষত্রটি এখনো ধুলোয় আবৃত কেন?  উপাদান তার সহচর থেকে স্থানান্তরিত হয়েছে?  গবেষকরা শীঘ্রই উত্তরগুলি অনুসন্ধান করতে শুরু করবেন।

তথ্যসুত্রঃ

The First Five Stunning Photos Captured by the James Webb Telescope | PetaPixel

James Webb updates: NASA reveals 5 stunning, new images from telescope – ABC News